বাগেরহাট ৪ আসনে বিএনপি’র হয়ে খালেদ চান লড়তে

নিজস্ব প্রতিবেদক:
বাগেরহাট-০৪ (শরণখোলা-মোড়েলগঞ্জ) আসনে ভোটে লড়তে ব্যাপক আলোচনায় উঠে এসেছেন বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নির্মাণ শ্রমিক দলের বাগেরহাট জেলা কমিটির সভাপতি ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণের শ্রমিক দলের সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ খায়রুল ইসলাম খালেদ। সম্প্রতি তিনি শরণখোলা-মোড়েলগঞ্জের মসজিদ, মাদ্রাসা, মন্দিরসহ শিক্ষা ও চিকিৎসার ক্ষেত্রে গরীব অসহায় মানুষদের আর্থিক অনুদান দিয়ে জনগণের নজড় কেড়েছেন। জনগণের ইচ্ছায়ই আগামী জাতীয় একাদশ সংসদ নির্বাচনে লড়তে বিএনপি’র সম্ভাব্য প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করেছেন সাবেক এ ছাত্রনেতা। খায়রুল ইসলাম খালেদ বলেন, মামলার হামলার পরোয়া না করে বিগত দিনে জনগণের পাশে ছিলাম, দলের দু:সময়ের পরীক্ষিত একজন ক্ষুদ্র কর্মী হিসেবে দল থেকে মনোনয়ন নিয়েছি। আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হলে বিজয় ছিনিয়ে এনে দলের মর্যাদা রাখতে সক্ষম হবো বলে শতভাগ আশাবাদী।
এদিকে শরলাখোলা উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা নজরুল ইসলাম লাল, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান মতিউর রহমান, যুবদল নেতা আল আমিন এবং মোড়েলগঞ্জ উপজেলার সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আজিজ মেলেটারী, প্রফেসর আউয়াল, যুবদল নেতা নাজমুল নাসিম রাখি, মো: আব্বাস, ছাত্রদলের খায়রুল ইসলাম রিয়াজ, তরিকুল ইসলাম শান্ত ও শ্রমিক দলের মোহন বলেন, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী নির্মাণ শ্রমিক দলের বাগেরহাট জেলা কমিটির সভাপতি মোঃ খায়রুল ইসলাম খালেদ দুঃসময়ে আমাদের পাশে ছিলেন। রাজনৈতিক হয়রানী ও মামলা-মোকদ্দমার শিকার এ এলাকার নেতা-কর্মীসহ সাধারণ লোকদের আইনি সহায়তা পেতে আর্থিক সাহায্যসহ নানাভাবে সহযোগীতা করেছেন এবং এখন করে যাচ্ছেন। তাকে দল থেকে মনোনয়ন দিলে আ’লীগের প্রার্থীকে পরাজিত করে সহসাই এখান থেকে বিজয় ছিনিয়ে আনতে পারবেন বলে আমরা আশাবাদী। এক্ষেত্রে মোড়েলগঞ্জ ও শরণখোলা বিএনপি’র সকল স্তরের নেতা-কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে বলেও জানান তারা। উল্লেখ্য, বাগেরহাট-০৪ সংসদীয় আসন থেকে বিএনপি’র মোঃ খায়রুল ইসলাম খালেদসহ ১৩ জন এবং আওয়ামী লীগ থেকে ১৭ জন মনোনয়ন সংগ্রহ করেছেন।