বাগেরহাটে বাস ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত-৪ আহত ৩২

বাগেরহাটের ফকিরহাটে বাস ও ট্রাকের সঙ্গে মুখোমূখি সংঘর্ষে চার জন নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন ট্রাকের চালক ও তিনজন বাসের যাত্রী। আহত হয়েছেন আরও অন্তত ৩২ জন। মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা-মাওয়া মহাসড়কের ফকিরহাট উপজেলার কলমের দোকান এলাকায় এদূর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা প্রায় ৩ ঘন্টা চেষ্টার পর উদ্ধার করে শেষ করে যানচলাচল স্বাভাবিক করে। ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে থেকে আহতদের মধ্যে ২৫ জনকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার করা হয়।
পুলিশ নিহতদের মধ্যে সাতক্ষিরার ট্রাক চালক কামরুল ইসলাম (৩৫), মোল্লাহাটের বিপিন পোদ্ধার (৫৫) ও খুলনার আড়ংঘাটার মাহমুদুল ইসলাম(১৩) নামে তিনজনের পরিচয় জানিয়ছেন।
বাগেরহাট অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মো. শাহাদাত হোসেন বলেন, মঙ্গলবার দুপুরে খুলনা থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া টুঙ্গিপাড়া এক্সপ্রেসের একটি বাস ঘটনাস্থলে পৌছে বিপরীত দিক থেকে আসা অপর একটি ট্রাকের মুখোমূখি সংঘর্ষ হয়। এতে টুঙ্গিপাড়া পরিবহনের দুই যাত্রী ও ট্রাক চালক ঘটনাস্থলেই নিহত হন। আরেকজন খুলনায় মারা যান। এসময় অন্তত ৩২ জন আহত হয়েছেন। দূর্ঘটনার পর খুলনা-মাওয়া মহাসড়কে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। সড়কে উদ্ধার কাজ শেষে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।
বাগেরহাট ফায়ার সার্ভিসের উপপরিচালক মাসুদ সরদার বলেন, বেপরোয়া গতির দুরপাল্লার বাসের সঙ্গে ট্রাকের মুখোমূখি সংঘর্ষে ঘটনাস্থলে তিন জন ও খুলনা মেডিকেলে একজন নিহত হয়েছে। এছাড়া কমপক্ষে ৩২ জনকে উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা বলেন, বেপরোয়া গতির কারনে এ দূর্ঘটনায় ঘটেছে। আমরা শব্দ পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে আহতদের উদ্ধার করি। চালকদের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছে বলে জানান তারা।