বাগেরহাটে যুবলীগ নেতার সন্ধানের দাবিতে মানবন্ধন

বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার মানসা-বাহিরদিয়া ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক শেখ সোহেলের সন্ধান পেতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। সোমবার দুপুরে মানসা বাহিরদিয়া বাজারে মানববন্ধনে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, নিখোজের পরিবারসহ এলাকাবাসী অংশ নেয়।
মানবন্ধনে বক্তব্য দেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মাহফুজুর রহমান বাবু, সাধারণ সম্পাদক কাজী স্বপন, ইমরান বিন লুৎফর, নিখোজের পিতা মুনসুর শেখ, স্ত্রী শারমিন বেগম প্রমুখ।


বক্তারা বলেন, ২২ ফেব্রুয়ারি সন্ধার পর আর বাড়িতে ফিরে না আসায় এবং তার মোবাইল ফোনটি বন্ধ থাকায় অনেক খোজাখুজির পর না পেয়ে পরের দিন রুপসা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করা হয়। এরপর থেকে আজও সোহেলের কোন সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি। সোহেল ট্রাক চালিয়ে জীবন যাপন করত। দুই সন্তান ও তার পরিবার এখন মানবেতর জীবন-যাপন করছে। আমরা সোহেলের সন্ধান চাই।
মানবন্ধনে দাড়িয়ে ছেলের সন্ধান পেতে অঝোড়ে কাদছিলেন সোহেলের পিতা মুনসুর শেখ।
সোহেলের স্ত্রী দুই সন্তানের মা শারমিন বেগম বলেন, প্রতিদিনের মত ২২ ফেব্রুয়ারি সকালে ট্রাক চালাতে যায়। তারপর সন্ধ্যার সময় বাড়িতে এসে খাওয়া দাওয়া শেষে আবার চলে যায় ট্রাক নিয়ে। এরপর আর তাকে ফোনে পাওয়া যায় নি। এ পর্যায়ে পার্শ্ববর্তী রুপসা উপজেলার গোয়ালবাথান গ্রামের নুরুল ইসলামের বাড়ির সামনে পাকা রাস্তায় ট্রাকটি পাওয়া যায়। কিন্তু কোথাও তাকে খূজে না পাওয়ায় ২৪ ফেব্রুয়ারি আমরা রুপসা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করি। কিন্তু আজঅব্দি তার কোন খোজ আমরা পাইনি। প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার দাবি তিনি যেন দুইটা মাসুম বাচ্চার কাছে তাদের বাবাকে ফিরিয়ে দেন এ বলে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন শারমিন বেগম।
ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম, ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি মাহফুজুর রহমান বাবু, সাধারণ সম্পাদক কাজী স্বপনসহ একাধিক নেতাকর্মীরা বলেন, সোহেল যুবলীগের নেতা হলেও ট্রাক চালিয়ে তার জীবিকা নির্বাহ করত। সোহেলের নামে থানায় কোন মামলা নেই। সোহেল কোন অপরাধের সাথে যুক্ত ছিল না। সোহেলের মত একটি ভাল ছেলে আমাদের মাঝ থেকে এভাবে হারিয়ে যেতে পারে, তা ভাবতেও পারি না। আমরা দ্রুত সোহেলের সন্ধান চাই।
রুপসা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোল্লা জাকির হোসেন বলেন, সোহেলের স্ত্রীর সাধারণ ডাইরি করার পর থেকে পুলিশ তৎপর রয়েছে। সোহেলের মোবাইলের কললিস্ট ধরেই আমরা তার সন্ধান পেতে চেষ্টা করছি। আশা খুব দ্রুত সোহেলের বিষয়ে আমরা বিস্তারিত জানতে পারব।