বাগেরহাটে দাড়িয়ে থাকা ট্রাকে পিকনিকের বাসের ধাক্কায় নিহত-২, আহত-৪

বাগেরহাটে দাড়িয়ে থাকা ট্রাকের সাথে ধাক্কা লেগে দুই বাসযাত্রী নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও অন্তত পাঁচজন। ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করেছে। শুক্রবার ভোর পাঁচটার দিকে বাগেরহাট-খুলনা মহাসড়কের সদর উপজেলার খানজাহান (রহ.) মাজারের অদূরে এই দূর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন, ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ত্রিবেনী গ্রামের প্রয়াত মকবুল হোসেনের ছেলে মো. গরীব উল্লাহ (৪৮) ও একই গ্রামের আবুল কাসেম মালিথার ছেলে কিবরিয়া মালিথা (২২)। নিহত গরীব উল্লাহ ট্রাকটর চালক এবং কিবরিয়া স্থানীয় একটি বাসের সুপারভাইজার ছিলেন।


বাসের যাত্রী লাল্টু আহমেদ বলেন, ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ত্রিবেনীর শেখপাড়া থেকে আমরা প্রায় ৪০ জন বাগেরহাটের খানজাহান (রহ.) মাজার ও ঐহিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদ দেখতে বাসযোগে রওনা হই। বাগেরহাট মাজারের কাছে পৌছে আমাদের বাসটি দাড়িয়ে থাকা ট্রাকে ধাক্কা দেয়। এতে আমাদের বাসের দুই যাত্রী নিহত হন।
ফায়ার সার্ভিসের বাগেরহাট কার্যালয়ে সহকারি পরিচালক সরদার মাসুদ জানান, ঝিনাইদহের শৈলকুপা থেকে বাগেরহাটের উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসা পিকনিকের একটি যাত্রীবাহী বাস ঘটনাস্থলে পৌছে দাড়িয়ে থাকা অপর একটি ট্রাকের পেছনে এসে ধাক্কা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে একজন নিহত এবং পাঁচজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বাগেরহাট ও খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। খুলনা মেডিকেলে নেয়ার পর আহত আরেক যাত্রী কিবরিয়াকে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।