দুরারোগ্য ব্যাধীতে আক্রান্ত দরিদ্র হাদিয়ার পাশে মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রীনা তালুকদার

মোঃ শহিদুল ইসলাম:

বাগেরহাটের দুরারোগ্য ব্যাধীতে আক্রান্ত হতদরিদ্র অদম্য মেধাবী হাদিয়া তাহসিনের পাশে দাড়িয়েছেন কেন্দ্রীয় মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী রীনা তালুকদার। শনিবার বিকালে তিনি মেধাবী ছাত্রীর পরিবারের কাছে যান ও অসুস্থ হাদিয়ার পাশে কিছু সময় থাকেন এবং চিকিৎসার খোজ খবর নেন। হাদিয়া তাহসিন দীর্ঘ চার বছর ধরে এসেলি রোগে আক্রান্ত হয়েছে।
রীনা তালুকদার বলেন,‘ সংবাদ কর্মীদের মাধ্যমে জানার পর খোজ খবর নিয়ে মেয়েটির সম্পর্কে বিস্তারিত জেনে নিজেকে গুটিয়ে রাখতে পারিনি। তাই তাকে দেখতে গিয়েছিলাম। তিনি হাদিয়ার চিকিৎসার জন্য সমাজের সকল শ্রেনীর বিত্তবানদের এগিয়ে আসার আহবান জানান।
হাদিয়ার মা জেসমিন সুলতানা বলেন, ‘আমার ¯^ামী ২০১৫ সালে টিবি রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। আমার অনার্স পাশ করা বড় মেয়ের টিউশনিতে কোন রকমে খেয়ে না খেয়ে আমাদের সংসার চলে। চার বছর আগে প্রথমে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে চিকিৎসকের কাছে আসি। পরে তাদের পরামর্শে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ,পরে মহাখালী বক্ষ্যব্যাধীতে এক বছর চিকিৎসা করি। পিজি হসপিটালের বর্হি বিভাগে চিকিৎসা করেও তেমন কোন ভাল ফল পাই নি। পরে ঢাকা মেডিকেলে এক বছর চিকিৎসা করেও তেমন কোন উন্নতি না হওয়ায় ধার করে ও জমি জমা বিক্রী করে ইন্ডিয়ার ভ্যালোরে সিএমসিতে হাদিয়াকে চিকিৎসা করাই। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে পরীক্ষা নিরিক্ষা করে জানান। তার উন্নত চিকিৎসার জন্য অনেক অর্থের প্রয়োজন। তিনি আরও বলেন, কয়েক বছর মেয়ের চিকিৎসা চালিয়ে রাখতে নিজেদের সহায় সম্বল সব হারিয়েছি। আমার নিজের পক্ষে আর খরচ চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়। আমি আমার মেয়েকে বাচাতে চাই। তিনি মেয়েকে দেখতে আসার জন্য রীনা তালুদারকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, সমাজের বিৃত্তবানরা যদি অসহায়দের পাশে দাড়ায় তাহলে আমাদের মতো লোকদের আর দুঃখ থাকবে না।