বাগেরহাট থেকে কুমিল্লা যাওয়ার পথে নিখোজ মা-মেয়ের সন্ধ্যান মেলেনি

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাগেরহাট থেকে কুমিল্লা যাওয়ার পথে নিখোজ মা-মেয়ের সন্ধ্যান মেলেনি ছয় দিনেও। সন্ধ্যান না পাওয়ায় পরিবারের সদস্যরা উদ্বেগ-উৎকন্ঠার মধ্যে দিন পার করছে। নিখোজরা হলেন, মোরেলগঞ্জ উপজেলার উত্তর চিংড়াখালী গ্রামের রুহুল আমিন হাওলাদারের স্ত্রী রুমা বেগম (৩৪) এবং তার মেয়ে ছোট কন্যা মরিয়ম (৪)। ছোট কন্যা মরিয়ম ছাড়াও তিনটি কন্যা সন্তান রয়েছে রুমার।
পরিবার সূত্রে জানা গেছে, বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জ উপজেলার উত্তর চিংড়াখালী গ্রামের সাবেক সেনা সদস্য আব্দুর রব শেখের মেয়ে রুমা বেগম ও তার স্বামী কুমিল্লা ইপিজেড এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন। তার স্বামী রুহুল আমিন হাওলাদার সেখানে কাঁচামালের ব্যবসা করেন। গত ১২ মে দুপুর ২টার দিকে বাগেরহাটের সাইনবোর্ড এলাকা থেকে রুমা তার মেয়ে মরিয়মকে নিয়ে রোহান পরিবহনে কুমিল্লার উদ্দেশ্যে রওনা হন। রাত তিনটার সময় কুমিল্লার জমজম হোটেলের সামনে নামার পরে স্বামীর সাথে কথা বলেন তিনি। এরপর থেকে নিখোজ রয়েছেন মা-মেয়ে।
রুহুল আমিন হাওলাদার বলেন, রাত তিনটার রুমা আমাকে ফোন দিয়ে জানায় সে জমজম হোটেলের সামনে পৌছেছে, কিছুক্ষনের মধ্যেই বাসায় আসবে। এরপর থেকে তার ফোনটি বন্ধ রয়েছে তাকে আর খুজে পাওয়া যাচ্ছে না। এ বিষয়টি কুমিল্লা সদর থানা পুলিশকে অবহিত করেছি।
রুমার বাবা আব্দুর রব শেখ বলেন, কয়েকদিন আগে রুমা আমার বাড়িতে বেড়াতে আসে। পরে স্বামীর কাছে যাওয়ার সময় সে নিখোজ হয়। তারপর আমরা আর কোন খোজ পাইনি রুমার। প্রশাসনের কাছে আমরা রুমার সন্ধান দাবি করছি।