মুক্তিযুদ্ধের চেতনার ফেরিওয়ালাঃ বাগেরহাটের অরিয়ন

এস.এস শোহান
১৯৭১ সালে দীর্ঘ ৯মাস রক্তক্ষয়ী যুদ্ধের মাধ্যমে আমাদের প্রাণের এ দেশ স্বাধীনতা লাভ করে। তবে কিছু কুলঙ্গার আছে সেই স্বাধীনতা যুদ্ধকে অস্বীকার করে। ইতিহাস বিকৃতির মাধ্যমে স্বাধীনতা যুদ্ধে যারা প্রাণ দিয়েছে তাদের ভূমিকাকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে চায়। এসবের মাঝেও দেশে এমন কিছু মানুষ রয়েছে যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে বুকে ধারণ করে বেচে আছে। মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস মানুষকে জানাতে নিরলস পরিশ্রম করে যাচ্ছে। এমনই একজন মানুষ বাগেরহাট সদরের আড়পাড়া গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা মোড়ল বজলুল করিমের ছেলে মোঃ মাসুদুল করিম অরিয়ন। যে বাঙ্গালী জাতির শ্রেষ্ট সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ত্যাগ ও বীরত্বের ইতিহাস সংরক্ষণ ও তা নতুন প্রজন্মের মাঝে প্রদর্শন কছেন। এর মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মের মাঝে দেশ প্রেম জাগ্রত করছেন তিনি। বাগেরহাটের অরিয়ন নিজের কিছু অনুসারীদের নিয়ে প্রতিষ্ঠা করেছেন মুক্তিযোদ্ধার ইতিহাস সংরক্ষণ কমিটি বাংলাদেশ নামক সংগঠন। যে সংগঠনের ম্যামে তিনি প্রথম ওয়েবসাইট ও ফেসবুকে মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ করণ কর্মকান্ড প্রচার করেন ও মানুষকে এ বিষয়ে লিখতে উব্দুদ্ধ করেন। দেশের আনাচে কানাচে ঘুরে ঘুরে ৮ বছর আগে প্রকৃত বীর মুক্তিযোদ্ধাদের বীরত্বগাঁথা ইতিহাস সংরক্ষণ করা শুরু করেন।

www.mssangsad.com ( মুক্তিযোদ্ধাদের প্রোফাইল ও ইতিহাস ভিত্তিক একমাত্র ওয়েবসাইট ) এ প্রকাশ করেন। তা প্রদর্শনের মাধ্যমে ৩হাজার ২‘শ ৪০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ছাত্রীদের কে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উব্দুদ্ধ করেন। সেই সাথে ছাত্র ছাত্রীদের কে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উব্দুদ্ধ করণের উপকরণ হিসেবে উপহার দেন মুক্তিযোদ্ধাদের প্রোফাইল ও ইতিহাস ভিত্তিক একমাত্র ওয়েবসাইটের লিঙ্ক বিশিষ্ট লাল সবুজ কলম ও নানাবিধ মুক্তিযুদ্ধের বই সামগ্রী। তিনি সর্বপ্রথম মুক্তিযোদ্ধাদের সাংবিধানিক স্বীকৃতি সহ মুক্তিযোদ্ধাদের সামাজিক ভাবে প্রতিষ্ঠার আন্দোলনের নেতৃত্ব দেন তার প্রতিষ্ঠিত সংগঠন এর মাধ্যমে। তার বাবা জীবন বাজি রেখেছিলেন ৭১এ দেশকে স্বাধীন করার জন্য। আর অরিয়ন ডিজিটাল বাংলাদেশকে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উব্দুদ্ধ করার জন্য নিজের সর্বোস্ব ত্যাগ করে বিভিন্য বাধার প্রতিকুলতার মধ্যে গুটিকয়েক অনুসারীদের নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছেন। যে কাজের কথা কেউ চিন্তাও করেনি তা নিজের কাধে তুলে নিয়েছেন দেশপ্রেমিক বাবার আদর্শিক সন্তান হিসেবে। মোঃ মাসুদুল করিম অরিয়ন শুধু বাগেরহাট বাসীর গর্ব নন তিনি সারা দেশের গর্ব, দেশপ্রেমিক ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা লালনকারী এক আদর্শ। অরিয়নের একটাই স্বপ্ন বাঙ্গালী জাতির সর্বকালের সর্বোশ্রেষ্ট সন্তান জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় প্রধান মন্ত্রী দেশ রতœ শেখ হাসিনা অরিয়নের ত্যাগ ও কষ্টের সফলতা দান করবেন কারন তিনি তো তার বাবার আদর্শই বাস্তবায়নের প্রয়াশ নিয়েছেন।