ঈদের কেনাকাটা করতে এসে নির্মানাধীন ভবনের ইট ধ্বসে বৃদ্ধ নিহত, আহত-১

alorpotha logo

ঈদের কেনাকাটা করতে এসে বাগেরহাট শহরে নির্মানাধীন পাঁচতলা ভবনের ইট মাথায় পড়ে কেরামত শেখ (৬০) নামে এক বৃদ্ধ নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন আরও একজন। শনিবার দুপুরে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়।
আহত স্বদেশ দত্তকে (১৮) বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার বাড়ি সদর উপজেলার বাগমারা গ্রামে।
এরআগে সকাল এগারোটার দিকে বাগেরহাট শহরের মেইনরোডের কাটপট্টি এলাকার প্রবাসী হাসানুজ্জামান হাসানের নির্মানাধীন বাড়ির পাঁচতলা ভবনের দেয়াল থেকে ইট ধ্বসে নিচেই পড়লে এই হতাহতের ঘটনা ঘটে।
নিহত কেরামত শেখ বাগেরহাট সদর উপজেলার মরগা গ্রামের নাছিম উদ্দীন শেখের ছেলে।
স্থানীয় প্রত্যক্ষদর্শী শেখ হুমায়ুন কবির পলি বলেন, বাগেরহাট শহরের মেইনরোডের কাটপট্টি এলাকায় গৌতম দাস নামে এক কাপড় ব্যবসায়ির দোকানে কেরামত শেখসহ কয়েকজন কেনাকাটা করতে আসেন। এসময় আকষ্মিকভাবে ওই দোকানের পাশের নির্মানাধীন পাঁচতলা ভবনের একটি দেয়াল ধ্বসে ৮/১০ টি ইট তার দোকানের টিনের উপর পড়ে। এর দুই তিনটি ইট দোকানে দাড়িয়ে থাকা ক্রেতা কেরামত ও স্বদেশের মাথায় পড়লে তারা গুরুতর আহত হন। আহতদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কেরামত শেখকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। অন্যজনকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
বাগেরহাট সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক জেনিয়া ফেরদৌস বলেন, মাথায় ইটের আঘাতে কেরামত শেখের অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাই তাকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজে পাঠানো হয়। আহত অপর একজনকে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। তিনি শঙ্কামুক্ত রয়েছেন।
বাগেরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাহাতাব উদ্দীন বলেন, শহরের মেইনরোডের কাঠপট্টি এলাকায় নির্মনাধীন পাঁচতলা ভবনের দেয়ালের ইট ধ্বসে পড়ে একজন নিহত ও একজন আহত হয়েছেন। নিহত কেরামত শেখ ঈদের সময় পোষাক কিনতে ওই ভবনের পাশের একটি দোকানে আসেন। এবিষয়ে কেউ এখনো থানায় লিখিত অভিযোগ করেনি।