সুন্দরবনে আটক ৬০ হরিণ শিকারিকে ৬ লক্ষ টাকা জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক

সুন্দরবনে হরিণ শিকারে যাওয়ার সময় আটক প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে মোট ৬ লক্ষ টাকা জরিমানা করেছে বন বিভাগ।মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) বিকেলে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান বন আইনে এ জরিমানা করেন।

এর আগে মঙ্গলবার ভোরে সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের চাঁদপাই রেঞ্জের জয়মনি এলাকা হরিণ শিকারের ফাঁদ, দা, কুড়াল, রশী ও ৩টি ট্রলারসহ ৬০ শিকারিকে আটক করে বন বিভাগ। পরে তাদেরকে চাঁদপাই রেঞ্জ কার্যালয়ে নিয়ে যাওয়া হয়। আটকদের সবার বাড়ি রামপাল উপজেলার গৌরম্ভা ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায়। ওই ইউনিয়নের ৮ নং ওয়ার্ডের মেম্বর কামাল হোসেনও রয়েছেন।

সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মো. মাহমুদুল হাসান বাংলানিউজকে জানান, রাসমেলা উপলক্ষে কিছু লোক হরিণ শিকার করার জন্য সংঘবদ্ধ হয়ে নির্ধারিত সময়ের আগেই সুন্দরবনে যাচ্ছিল, খবর পেয়ে চাঁদপাই রেঞ্জের সহকারি বন সংরক্ষ শাহিন কবিরের নেতৃত্বে জয়মনি এলাকায় অভিযান চালায় বনরক্ষীরা। তিনটি ট্রলারে থাকা লোকজনকে চ্যালেঞ্জ করলে তারা দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় ট্রলারসহ তাদের আটক করা হয়। পরে ট্রলারে তল্লাশি চালিয়ে হরিণ শিকারের ফাঁদ, দা, কুড়াল, জব্দ করা হয়। আটকদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়েছে। ওই টাকা প্রাপ্তি শেষে তাদেরকে মুক্ত করে দেওয়া হবে। তবে ট্রলার তিনটি আসন্ন রাস মেলা শেষে মালিকদের কাছে হস্তান্তর করা হবে বলেও জানান তিনি।