চিতলমারীতে দুই শিশু রিফাত ও খালিদ হত্যায় জড়িতদের বিচার দাবীতে মানববন্ধন

চিতলমারী প্রতিনিধি.বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলায় একই পরিবারের পরপর দুই শিশু রিফাত ও খালিদ হত্যায় জড়িত চিহ্নিত সন্ত্রাসীদের বিচার দাবীতে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলা সদরের চৌদ্দ হাজারী সরকারী প্রাইমারী স্কুল মাঠে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনে স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তি, হত্যার শিকার দুই শিশুর বাবাসহ সহস্রাধিক লোক অংশগ্রহণ করেন।
মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, নিহত শিশু খালিদের বাবা চিতলমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যাপক কাওছার তালুকদার, শিশু রিফাতের বাবা আঃ মান্নান তালুকদার, রিফাতের মা  রিপা বেগম, খালিদের মা বেবী নাজনীন, সাবেক ইউপি সদস্য অবসর প্রাপ্ত মোস্তফা তালুকদার, শ্রমিক লীগ নেতা শেখ আতিয়ার রহমান, স্কুল শিক্ষক আলতাপ হোসেন ও  রিয়াদ হোসেনসহ আরও অনেকে।
বক্তারা বলেন, চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ নেতা কাওছার তালুকদারকে পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে। সেই মামলা থেকে বাঁচতে কাওছার তালুকদার সুস্থ হওয়ার আগেই তার শিশু সন্তান খালিদকে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। পরিবারটিকে নিশ্চিহ্ন করতে কাউছার তালুকদারের ভাই আঃ মান্নান তালুকদারের ছেলে রিফাতকেও হত্যা করে। বিচারহীনতার কারণে একই সন্ত্রাসীরা একের পর এ ধরনের হত্যাকাণ্ড ঘটাচ্ছে। আমরা হত্যাকারীদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।
হত্যাকারীদের ফাঁসি নিশ্চিত করার মাধ্যমে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও বাগেরহাট-১ আসনের সংসদ সদস্য শেখ হেলাল উদ্দিনের হস্তক্ষেপ কামনা করেন বক্তারা

 

উল্লেখ্য গত ২৬ নভেম্বর বিকেলে চৌদ্দ হাজারী গ্রামের আঃ মান্নান তালুকদারের ছেলে রিফাতকে (৫) শ্বাসরোধ করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা। এর আগে ১৫ জুন একইভাবে একই পরিবারের অধ্যাপক কাওছার তালুকদারের ছেলে খালিদকেও (৬) হত্যা করে প্রতিপক্ষরা। ১৭ জুন একটি ডোবা থেকে খালিদের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে একই সন্ত্রাসীরা কাওছার তালুকদারকে হত্যার চেষ্টা করে।