জীবন বাঁচাতে সহযোগিতা চান অসুস্থ্য গাড়ি চালক

নিজস্ব প্রতিবেদক
বাগেরহাটে জীবন বাঁচাতে প্রধানমন্ত্রীর সহযোগিতা চান ফুসফুসে পানি জমা (প্লুরাল ইফিউশন) রোগে আক্রান্ত গাড়ি চালক মোঃ শাহদাৎ হোসেন (৪৮)। চিকিৎসায় নিজের সঞ্চিত অর্থসহ আত্মীয় স্বজনের কাছ থেকে ধারও করেছেন অনেক টাকা। বর্তমানে টাকার অভাবে একদিকে নিজের চিকিৎসা করাতে পারছেন না, অন্যদিকে ৩ ছেলে ও স্ত্রী‘র তিনবেলা ভাতও জুটছে না। এ অবস্থায় বাঁচার জন্য মানুষের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেড়াচ্ছেন শাহদাৎ হোসেন।
অসুস্থ্য শাহদাৎ হোসেন মোরেলগঞ্জ উপজেলার মোনাচ্ছের আলী হাওলাদারের ছেলে। তিনি যাত্রীবাহী বাসের চালক ছিলেন। তিনি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন নিবেদিত কর্মীও বটে।
কিন্তু বর্তমানে টাকার অভাবে শাহদাৎ হোসেনের চিকিৎসা বন্ধ রয়েছে। এর উপরে তার স্ত্রী রাজিয়া বেগমও ভুগছে টিবি রোগে। ব্রাক থেকে ফি চিকিৎসা পেলেও, রোগীর সেবাযতœ হচ্ছে না টাকার অভাবে। এ অবস্থায় জীবন বাঁচাতে শাহদাৎ হোসেন প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরসহ বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন করেন। সকলের কাছে সহযোগিতার আহবান জানান তিনি।
অসুস্থ্য শাহদাৎ হোসেন বলেন, ফুসফুসে পানি জমায় দীর্ঘদিন ধরে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি ছিলাম। বর্তমানে টাকার অভাবে আর হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে পারছি না। চিকিৎসার জন্য এখন ৬ লক্ষাধিক টাকার প্রয়োজন। এই টাকা না হলে আর বাঁচতে পারবনা বলে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েন তিনি।
তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের সকল মানুষের জন্য কাজ করছেন। আমি প্রধানমন্ত্রীর সাথে দেখা করতে চাই। আমাকে দেখলে তার দয়া হবে। তার সহযোগিতায় আমি নতুন জীবন ফিরে পাব। সহযোগিতার জন্য বিকাশ নং-০১৭৯২-০৬৬৬৯১।