মোল্লাহাটে বসতঘর থেকে পরিবারের সদস্যদের বের করে দখলের চেষ্টা

বাগেরহাটের মোল্লাহাটে বসতঘর থেকে পরিবারের সদস্যদের বের করে দখলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা সদরের দেড়বোয়ালিয়া গ্রামের মাসুম মোল্লার স্ত্রী ও সন্তানদের বসতঘর থেকে বের করে দিয়ে প্রতিপক্ষ মুরাদ মোল্লা দখলের চেষ্টা করে। পরে খবর পেয়ে থানা পুলিশ এগিয়ে এলে প্রতিপক্ষরা ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।
মাসুম মোল্লা জানান, সকালে ব্যাক্তিগত কাজে বাগেরহাট জেলা সদরে গেলে এ সুযোগে প্রতিপক্ষ মুরাদ মোল্লা আমার স্ত্রী ও সন্তানদের ঘর থেকে জোরপূর্বক টেনে হেচড়ে বের করে দিয়ে দখলের চেষ্টা করে। এসময় পুলিশকে জনালে তারা এগিয়ে আসলে চলে যায়। এসময় তারা আমাদের পরিবারকে হত্যার হুমকি দেয়।
তিনি আরও জানান, ২০১৫ সালে ১৫ শতক জমি মুরাদ মোল্লার কাছ থেকে ৭ লাখ টাকা দিয়ে বায়না রেজিষ্ট্রি করা হয়। এরপর থেকে ওই জমিতে ঘর বেধে বসবাস করছি। কিন্তু তারা কখনও জমি দলিল করে না দিয়ে ওই জমি ছেড়ে দেওয়ার জন্য হুমকি দেয় এবং হামলা করে। এনিয়ে আদালতে মামলা চলছে। মুরাদ মোল্লা কারও কোন কথা না শুনে নানা রকমের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে আসছে। আমার পরিবারের উপর বেআইনী ভাবে একের পর এক অত্যাচার নির্যাতন চালানোর ঘটনায় বিচার চাই।
এবিষয়ে মুরাদ মোল্লা বলেন, জমির সম্পুর্ন টাকা পরিশোধ না করে কবলা দলিল করার জন্য চাপ প্রয়োগ করে।
মোল্লাহাট থানার ওসি তদন্ত জগদিশ বলেন, মাসুম ও মুরাদ একে অপরের আত্মীয়। তাদের মধ্যে জমিজমা নিয়ে বিরোধ রয়েছে। আমরা খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিবারের সদস্যদের ঘরে তুলে দেই।