এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্তির দাবিতে মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের প্রিলিমিনারি (এমসিকিউ) পরীক্ষায় উত্তীর্ণ শিক্ষানবিসদের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্তির দাবিতে বাগেরহাটে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে। মঙ্গলবার (৩০ জুন) বেলা ১১টায় বাগেরহাট প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়। ২০১৭ ও ২০২০ সালে এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণ ৪২ জন শিক্ষানবিস এই মানববন্ধনে অংশগ্রহন করেন।

মানববন্ধনে বক্তব্য দেন, শিক্ষানবিস আইনজীবী লিটন সরকার, শিরিনা আক্তার, সৈয়দ নাজিমুর রহমান, নিজাম শিকদার, মোঃ মনিরুজ্জামানসহ আরও অনেকে।

বক্তারা বলেন, আমরা আইনবিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনকারী ৯০ হাজার পরীক্ষার্থী ২০১৭ ও ২০২০ সালে বার কাউন্সিলের অত্যন্ত প্রতিযোগিতাপূর্ন এমসিকিউ পরীক্ষায় প্রায় অংশগ্রহন করি। এর মধ্যে আমরা মাত্র ১২ হাজার ৮‘শ ৮৭ জন উত্তীর্ণ হই। ২০২০ সালের ২৮ ফেব্রুয়ারি সর্বশেষ অনুষ্ঠিত এমসিকিউ পরীক্ষায় ৩ মাসের মধ্যে লিখিত পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও বৈশ্বিক মহামারি করোনার জন্য তা গ্রহন করা সম্ভব হয়নি। এছাড়া নিয়মিত বারকাউন্সিলের পরীক্ষা অনুষ্ঠিত না হওয়ায় ৫, ৭ ও ১০ বছর আগে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আইনবিষয়ে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনকারী অনেক শিক্ষার্থী আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত হতে পারেনি। আমরা না পারছি আইন পেশায় ক্যারিয়ার গড়তে, না পারছি অন্য পেশায় যেতে। এ অবস্থায় আমরা এক ধরণের মানববেতর জীবন যাপন করছি। তাই মানবিক দৃষ্টিতে এমসিকিউ পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের আইনজীবী হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করণের দাবি জানাই। এই দাবি পূরণের জন্য এর আগে আমরা জেলা প্রশাসক ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছি। আমরা যাতে আইনজীবী হিসেবে একটি স্বাভাবিক জীবনযাপন করতে পারি সে জন্য প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।