করোনায় মৃতের সংখ্যা ঢাকা বিভাগে বেশি ময়মনসিংহ বিভাগে কম

বাংলাদেশে ২৪ ঘণ্টায় আরও ২৯ জনের মৃত্যুতে দেশে মৃতের সংখ্যা পৌঁছে গেছে ২ হাজারের কাছে । স্বাস্থ্য অধিদফতরের নিয়মিত বুলেটিনে শনিবারের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, দেশে কোভিড-১৯ রোগে মৃতের সংখ্যা এখন ১ হাজার ৯৯৭ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগেই সবচেয়ে বেশি রোগী মারা গেছে। আর সবচেয়ে কম মারা গেছে ময়মনসিংহ বিভাগে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক নাসিমা সুলতানা বলেন, এ পর্যন্ত ঢাকা বিভাগে এক হাজার ৪১ জন, চট্টগ্রামে ৫২১ জন, রাজশাহীতে ১০১ জন, সিলেটে ৮৪ জন, খুলনায় ৮২ জন, বরিশালে ৬৭ জন, রংপুরে ৫৩ জন এবং ময়মনসিংহে ৪৮ মারা গেছেন। এছাড়া এ পর্যন্ত যারা মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের মধ্যে পুরুষের সংখ্যা এক হাজার ৫৮৭ আর নারী ৪১০ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় যারা মারা গেছেন তাদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৯ জন, চট্টগ্রামে ৪ জন, রাজশাহীতে ৭ জন, সিলেটে ৩ জন, খুলনায় ৩ জন, বরিশালে ২ জন এবং ময়মনসিংহে একজন। দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত ৮ মার্চ, তার ১০ দিনের মাথায় ১৮ মার্চ প্রথম মৃত্যুর খবর আসে। প্রায় এক মাস পর মৃতের সংখ্যা ২০ এপ্রিল ১০০ ছাড়িয়েছিল। মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায় গত ২৫ মে। গত ১০ জুন মৃতের সংখ্যা হাজার ছাড়ায়। দেড় হাজার ছাড়িয়েছিল ২২ জুন। প্রথম মৃত্যুর ৮৪ দিন পর ৪ জুলাই মৃতের সংখ্যা দুই হাজারের কাছে পৌঁছে গেল। এই হিসেবে মৃতের সংখ্যা ৫০০ ছাড়াতে সময় লেগেছিল ২ মাস ৭ দিন। পরের ৫০০ জনের মৃত্যু ঘটে ১৬ দিনের মধ্যে। তার পরের ৫০০ জনের মৃত্যু ঘটে ১২ দিনে। মৃতের তালিকায় আরও ৪৯৭ জন যোগ হতে সময় লাগল ১৩ দিন।