চুরির ভুল তথ্য প্রচার করায় মোংলা বন্দরে বিদেশী জাহাজকে ৫শ মার্কিন ডলার জরিমানা

নিজস্ব প্রতিবেদক.
দেশের ২য় সমুদ্র বন্দর মোংলায় অবস্থানরত এম ভি সিনা-০৫ নামক একটি বিদেশী জাহাজকে ৫শ ইউএস ডলার জরিমানা করেছে বন্দর কর্তৃপক্ষ। চুরির ভুল তথ্য প্রকাশ এবং বন্দরের সুনাম ক্ষুন্ন করায় বন্দর কর্তৃপক্ষ এই জরিমানা করেন। এছাড়া জাহাজটির ক্যাপ্টেন এবং চীফ অফিসার তাদের কর্মকান্ডের জন্য ভুল স্বীকার করে বন্দর কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়েছেন।
মঙ্গলবার (২৮ জুলাই) মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার কমান্ডার শেখ ফখর উদ্দীনের পাঠানো এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়।
প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ২৪ জুলাই রাত ২টার দিকে এম,ভি সিনা-০৫ নামক বিদেশী জাহাজ থেকে ৪টি মুরিং রোপ চুরি যায় বলে বন্দর কর্তৃপক্ষের মেইলে এমন অভিযোগ করে। জাহাজটি বিভিন্ন গণমাধ্যমের কাছেও একই তথ্য প্রচার করে। যা বিভিন্ন গণমাধ্যমেও প্রচারিত হয়। পরবর্তীতে বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নিয়ে বন্দর কর্তৃপক্ষ স্থানীয় এজেন্ট “সি এশিয়া শিপিং এজেন্ট” এবং জাহাজ কর্তৃপক্ষের সাথে বিস্তারিত আলোচনা ও চুরির বিষয়টি পর্যালোচনা করে। পর্যালোচনায় দেখা যায় জাহাজ কর্তৃপক্ষ তাদের নিরাপত্তার জন্য ডেক ওয়াচম্যান নিশ্চিত করতে পারেননি। ঘটনার সময় ডেক ওয়াচম্যান কোন রিলিভার ছাড়াই ডিউটি পোস্ট ত্যাগ করে বাথরুমে যায়। বিষয়টি অনুধাবন করে জাহাজের ক্যাপ্টেন ও চীফ অফিসার তাদের নিজস্ব নিরাপত্তার বিষয়ে গাফিলতির বিষয়টি স্বীকার করেন এবং দুঃখ প্রকাশ করে বন্দর কর্তৃপক্ষের নিকট পত্র প্রেরণ করেন। রোপ চুরির স্বপক্ষে কোন প্রমান উপাস্থাপন করতে না পারা এবং চুরির ভুল তথ্য উপস্থাপন করায় জাহাজটির স্থানীয় এজেন্টদের কাছ থেকে ৫‘শ মার্কিন ডলার জরিমানা আদায় করা হয়েছে।
মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান রিয়ার এডমিরাল এম শাহজাহান বলেন, দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন ও মোংলা বন্দরের বিষয়ে নেতিবাচক প্রচার বন্দর কর্তৃপক্ষ কখনওই মেনে নেয় না। বিদেশী ওই জাহাজটি যে কাজ করেছে তা জঘন্যতম অপরাধ। তাই তাদেরকে সতর্ক ও জরিমানা করা হয়েছে। বন্দরের সুনাম ক্ষুন্ন করে এমন কোন কাজ কাউকে করতে দেওয়া হবে না।