সুন্দরবনে আরও চারটি ইকোট্যুরিজম কেন্দ্র হবে- উপমন্ত্রী

পরিবেশ, বন ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার বলেছেন, খুব শীঘ্রই পূর্ব ও পশ্চিম সুন্দরবনে আরও ৪টি নতুন ইকোট্যুরিজম প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হবে। রবিবার পর্যটন স্পট বৃদ্ধির সম্ভাব্যতা যাচাইয়ে সুন্দরবন পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের একথা জানান।
পশ্চিম সুন্দরবনের খুলনা রেঞ্জের শেখেরটেক ও কলাগাছিয়া এবং সাতক্ষীরা রেঞ্জের কাশিয়াবাদ ও দোবেকি এলাকায় নতুন পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে।
এছাড়া পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই ও শরণখোলা রেঞ্জেও তদরুপ নতুন ইকোট্যুরিজম কেন্দ্র বৃদ্ধি করার কথা ভাবছে বন মন্ত্রনালয়।
এর আগে পশ্চিম সুন্দরবনের বনবিভাগের বিভিন্ন অফিস ও স্থাপনা ঘুরে দেখেন এবং বনবিভাগের নানা সুবিধা-অসুবিধা নিয়ে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে আলাপ আলোচনা করেন। এসময় পশ্চিম সুন্দরবন অঞ্চলের বন সংরক্ষক মো: মইনউদ্দিন খান, পশ্চিম সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মহসীন হোসেন, খুলনা রেঞ্জের বানিয়াখালী ষ্টেশন কর্মকর্তা মো: আবু সালেহ, সাতক্ষীরা রেঞ্জের এসিএফ এম এ হাসানসহ বনবিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
পশ্চিম সুন্দরবনের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা ড. আবু নাসের মহসীন হোসেন বলেন, পূর্ব সুন্দরবনের করমজল ও হাড়বাড়িয়ার মত পর্যটন কেন্দ্র গড়ে তোলা হবে পশ্চিম সুন্দরবনের খুলনা ও সাতক্ষীরা রেঞ্জে। যার ফলে স্থানীয়দের বন ভ্রমণে যেমন সুবিধা হবে, তেমনি পর্যটন কেন্দ্রগুলোকে ঘিরে এখানকার মানুষের কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে। সেই লক্ষ্যেই রবিবার উপমন্ত্রী হাবিবুন নাহার পশ্চিম সুন্দরবন ঘুরে দেখেছেন বলেও জানান তিনি।