পশুর চ্যানেলে কয়লা বোঝাই কার্গোডুবি, উদ্ধার কাজ শুরু হবে সোমবার

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের মোংলা সমুদ্র বন্দরের পশুর চ্যানেলে এমভি বিবি-১১৪৮ নামের কয়লা বোঝাই জাহাজ ডুবির ১৯ ঘন্টা পরেও উদ্ধার কাজ শুরু হয়নি।তবে চ্যানেলে নৌযান চলাচল স্বাভাবিক রয়েছে। সোমবার সকালে উদ্ধার কাজ শুরু হবে বলে জানিয়েছে বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার শেখ ফখর উদ্দিন।এর আগে শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) গভীর রাতে পশুর চ্যানেলের বানিয়াশান্তা এলাকায় ইসমাইলের ছিলায় এই কার্গোডুবির ঘটনা ঘটে।ডুবে যাওয়া জাহাজটিতে ৮‘শ ৪৮ টন কয়লা ছিল।মোংলা বন্দরের হারবাড়িয়ায় নোঙ্গর করা মাদার ভ্যাসেল থেকে ইস্টার্ণ প্রাইভেট লিমিটেডের আমদানি কলা কয়লা নিয়ে জাহাজটি যশোর জেলার নওয়াপাড়া নৌবন্দরে যাচ্ছিল। লাইটার জাহাজ পরিবহন ঠিকাদার (ক্যারিয়ার) মোঃ কামাল হোসেন বলেন, ডুবে যাওয়া জাহাজটি মূল চ্যানেলের পাশে রয়েছে।জাহাজে থাকা নাবিক ও শ্রমিকরা সবাই নিরাপদে রয়েছেন। কোন হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। আমরা জাহাজটি উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় যোগাযোগ রক্ষা করছি।

এদিকে জাহাজডুবির ঘটনায় জাহাজের মাস্টার মোংলা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন।ডায়েরীতে তিনি ঘন কুয়াশা ও স্রোতের কারণে কাত হয়ে জাহাজটি ডুবে গেছে বলে জানিয়েছেন মোংলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল বাহার চৌধুরী।

রবিবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাস্টার ফখর উদ্দিন বলেন, মোংলা বন্দর থেকে এক কিলোমিটার দক্ষিনে পশুর নদীর ইসমাইলের ছিলা নামক স্থানে জাহাজটি ডুবে যায়। এমভি বিবি-১১৪৮ নামের কয়লা বোঝাই জাহাজটি চ্যানেলের পাশে রয়েছে। বন্দরের নৌযান চলাচলে কোন সমস্যা হচ্ছে না। আমরা জাহাজ কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করেছি। তারা জাহাজটি উদ্ধারের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহনের চেষ্টা করছে। সোমবার সকাল নাগাদ উদ্ধার কাজ শুরু হতে পারে বলে মালিক পক্ষ জানিয়েছেন। তারপরও বন্দর কর্তৃপক্ষের কোন সহযোগিতা তারা চাইলে আমরা সহযোগিতা করব।