বাগেরহাট বই মেলায় ২৫ লাখ টাকা বিক্রি,সমাপনীতে পুরুষ্কার

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটে ১২ দিন ব্যাপী একুশে এবারের বই মেলায় ২৫ লাখ টাকার বই বিক্রি হয়েছে| শুক্রবার (৫ মার্চ) রাতে সমাপনী অনুষ্ঠানে খুলনা বিভাগীয় অতিরিক্ত কমিশনার শুভাষ চন্দ্র সাহা প্রধান অতিথি হিসেবে সর্বোচ্চ বই ক্রেতাকে পুরুষ্কার তুলে দেন। বাগেরহাট জেলা প্রশাসক আনম ফয়জুল হকের সভাপতিত্বে সমাপনী পুরুষ্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধান আলোচক ফকিরহাট সরকারী ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কলেজের অধ্যক্ষ অমিত রায় চৌধুরী, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ পরিচালক দেব প্রসাদ পাল, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মোছাব্বেরুল ইসলাম ও জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ভুইয়া হেমায়েত উদ্দীন।

একুশে এই বইমেলা থেকে বাগেরহাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তপন কুমার বিশ্বাস ১ লাখ ৭১ হাজার টাকার বই ও সদর উপজেলার গোটাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শমসের আলী ১ লাখ ৫২ হাজার টাকার বই কেনায় তাদেরকে পুরুষ্কৃত করা হয়। এছাড়া কুইজ প্রতিযোগীতার মাধ্যমে ১০ জন বিজয়ীকে পুরুষ্কার প্রদান করা হয়।

বক্তারা বলেন, জীবন গড়তে বইয়ের কোনো বিকল্প নেই।একজন মানুষের জীবনে বই সবচেয়ে বড় বন্ধু। বই এমন একটি উপকরণ, যা একজন মানুষকে সহজেই আলোকিত করে তুলতে পারে। শিক্ষার আলো, নীতি-নৈতিকতা-আদর্শ, ইতিহাস-ঐতিহ্য, কৃষ্টি-সভ্যতা, সাহিত্য-সংস্কৃতিসহ সবকিছুই রয়েছে বইয়ের ভেতরে। একমাত্র বইয়ের মধ্যেই আছে সব ধরনের জ্ঞান। তাই জীবনের জন্য বই প্রয়োজন। একটি সুস্থ, সুন্দর জাতি গঠন করতে হলে অবশ্যই বই পড়তে হবে।

পুরুষ্কার প্রাপ্ত বই ক্রেতা গোটাপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শমসের আলী বলেন, আমার ইউনিয়ন পরিষদের একটি কক্ষে স্থানীয়দের পড়ার জন্য লাইব্রেরী গড়ে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। একারনে বই গুলো ক্রয় করেছি।

২২ ফেব্রুয়ারী আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বাগেরহাট জেলা পরিষদ অডিটোরিয়াম চত্বরে এই বই মেলার উদ্বোধন করা হয় ।#