মোল্লাহাটে নির্বাচনী সহিংসতায় নিহতের ঘটনায় মামলা, গ্রেফতার ১

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের মোল্লাহাটের শাসন গ্রামে দুই ইউপি সদস্য প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে নিহতের ঘটনায় মামলা দায়ের হয়েছে। শনিবার নিহত আসাদ শেখের মেয়ে মমতাজ বেগম বাদী হয়ে ৮৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১০-১২জনকে আসামী করে মোল্লাহাট থানায় এই মামলা করেন। এদের মধ্যে এজাহার নামীয় আসামী মিকাইল হোসেন চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
মোল্লাহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী গোলাম কবির বলেন, শনিবার নিহতের মেয়ে মমতাজ বেগম বাদী হয়ে আবুল হোসেন মোল্লাকে প্রধান আসামী করে ৮৭ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১০-১২জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন। আমরা ইতোমধ্যে এজাহার নামীয় ২ নং আসামী মিকাইল হোসেন চৌধুরীকে গ্রেফতার করেছি। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (০১ এপ্রিল)বিকেলে মোল্লাহাট উপজেলার চুনখোলা ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী মামুন শেখ ও কিবরিয়া শরীফের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়।আহতদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রার্থী মামুন শেখের চাচা আসাদ শেখ (৭০) মারা যায়।মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে উভয় পক্ষের লোকজনের ৩০ থেকে ৩৫টি ঘরবাড়ি ভাংচুর করে। ময়নাতদন্ত শেষে শুক্রবার (০২ এপ্রিল)জুমআবাদ নিজ বাড়িতে নিহত আসাদের শেখের দাফন সম্পন্ন হয়েছে। এদিকে সংঘর্ষের পর থেকে মোল্লাহাট উপজেলার শাসন গ্রামে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।