বাগেরহাটের ৫’ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে ৯ জনসহ ২৫৩ প্রার্থীর মনোনয়ন

নিজস্ব প্রতিবেদক.দ্বিতীয় দফায় আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বাগেরহাটের পাঁচটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ৯ জনসহ ২৫৩ প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। রবিবার (১৭ অক্টোবর) বিকেল পাঁচটায় মনোনয়ন জমা দানের শেষ দিন পর্যন্ত প্রার্থীরা রিটাংনি কর্মকর্তার কাছে এই মনোনয়ন পত্র জমা দেন।

৫ ইউনিয়নে  চেয়ারম্যান পদে ৯ জন, সাধারণ সদস্য পদে ১৮৩ জন এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৬১ জন মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।  এর মধ্যে বাগেরহাট সদর উপজেলার ষাটগম্বুজ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত শেখ আক্তারুজ্জামান বাচ্চু এবং স্বতন্ত্রপ্রার্থী শেখ মুকিতুল ইসলাম মুকিত মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এছাড়া সাধারণ সদস্য পদে ৪২ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।  যাত্রাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত বেগ এমদাদ হোসেন এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে জাহিদুর রহমান মনোনয়ন দাখিল করেছেন। এছাড়া সাধারণ সদস্য পদে ২৬ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

গোটাপড়া ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী শেখ সমশের আলী এককপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এছাড়া সাধারণ সদস্য পদে ৪৬ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৪ জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। ফকিরহাট উপজেলার মূলঘর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে তিনজন, সাধারণ সদস্য পদে ৩৬ এবং সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ৯জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

চেয়ারম্যান পদে মনোনয়ন জমাদানকারীরা হলেন, আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের এ্যাড. হিটলার গোলদার, স্বতন্ত্র প্রার্থী শেখ মোহাম্মদ আবুবকর এবং নাছির সরদার। মোল্লাহাট উপজেলার গাংনি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে একক প্রার্থী হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতিকের শিকদার উজির আলী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন। এছাড়া সাধারণ সদস্য পদে ৩৩ এবং  সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১১জন প্রার্থী মনোনয়ন জমা দিয়েছেন।

বাগেরহাট জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ফারাজি বেনজির আহমেদ বলেন, দ্বিতীয় দফায় বাগেরহাটের পাঁচটি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিনে পাচ ইউনিয়নে ২৫৩ জন প্রার্থী মনোনয়ন দাখিল করেছেন। এই নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আমরা সব ধরণের প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছি। আশাকরি নির্ধারিত সময়ে আমরা নির্বাচন সম্পন্ন করতে পারব। আগামী ২০ অক্টোবর মনোনয়ন পত্র বাছাই, ২৬ অক্টোবর প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন এবং ১১ নভেম্বর জেলার এই পাচ ইউপিতে ভোট সম্পন্ন হওয়ার কথা রয়েছে বলে জানান তিনি।