শরণখোলায় শিক্ষক বরখাস্ত, তদন্ত কমিটি গঠন

alorpotha logo

বাগেরহাটের শরণখোলার আমড়াগাছিয়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের এক শিক্ষককে বরখাস্ত করে, তার অপরাধ খুজতে তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। ওই বিদ্যালয়ের শিক্ষক মাহফুজুর রহমান প্রিন্সের বিরুদ্ধে অনৈতিক কর্মকান্ডের অভিযোগে মঙ্গলবার ক্লাস বর্জন করে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন করেছে শিক্ষার্থীরা । তবে অভিযক্ত শিক্ষক দাবি করেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে প্রতিপক্ষরা শিক্ষার্থীদের ভুল বুঝিয়ে তার বিরুদ্ধে অহেতুক অভিযোগ তোলা হয়েছে।
মঙ্গলবার সকালে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ কর্মসুচি চলাকালে অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িক বরখাস্ত এবং তিন সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটি। এর পরে শিক্ষার্থীরা তাদের কর্মসূচি প্রত্যাহার করে।
উপজেলার ধানসাগর ইউনিয়নের আমড়াগাছিয়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ক্রীড়া শিক্ষক মাহফুজুর রহমান প্রিন্স সোমবার দুপুরে এক কলেজ ছাত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ার খবরে মঙ্গলবার শিক্ষকের বিরুদ্ধে আন্দোলন করেন।
বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো.সরোয়ার হোসেন খান বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে। তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি করে কমিটিকে সাত দিনের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।
শিক্ষক মাহফুজুর রহমান প্রিন্স বলেন, স্থানীয় আমড়াগাছিয়া বাজার ইজারা নিয়ে দ্বন্দের কারণে প্রতিপক্ষরা অহেতুক মিথ্যা ও কাল্পনিক অভিযোগ তুলে শিক্ষার্থীদের ব্যবহার করে আমাকে সামাজিক ও পেশাগত ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার চেষ্টা করছে। কোন মেয়েলি ঘটনা ঘটেনি। অথচ রাজনৈতিকভাবে স্বার্থ হাছিল করার জন্য আমার বিরুদ্ধে প্রপাগান্ডা ছড়াচ্ছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠ তদন্তের দাবি জানাই।
শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাস বলেন, ‘অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে বিধিমত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।