বাগেরহাটেও ডেঙ্গুর প্রকোপ, চারজন সনাক্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক:
ঢাকাসহ সারা দেশ যখন ডেঙ্গু জ্বরে কাপছে। তখন বাগেরহাটেও ডেঙ্গু আক্রান্ত চারজনকে সনাক্ত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত চার রোগীই বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিল। ডেঙ্গু আক্রন্তরা হলেন, বাগেরহাট শহরের নাগের বাজার এলাকার নরুজ্জামানের ছেলে শিপন (২৫), দেপাড়া গ্রামের আব্দুর রহমানের ছেলে আর ইমরান (২১), বাদোখালি এলাকার আবু বকরের ছেলে কায়কোবাদ (২৩) এবং সায়রা এলাকার শেখ মোস্তাফার ছেলে ইব্রাহিম শেখ (২৪)। এর মধ্যে শিপন ছাড়া অন্য তিনজন চিকিৎসা শেষে বাড়িতে চলে গেছেন।রবিবার (২৮ জুলাই) দুপুরে বাগেরহাট সিভিল সার্জন ডা. জি কে এম সামসুজ্জামান এসব তথ্য জানান।
বাগেরহাট সিভিল সার্জন ডা. জি কে এম সামসুজ্জামান বলেন, ডেঙ্গু রোগে আক্রান্ত বাগেরহাট সদর হাসপাতালে এ পর্যন্ত ৪ জন রোগী ভর্তি হয়েছিল। এদের মধ্যে তিন চিকিৎসা শেষে বাড়িতে গিয়েছে। শিপন নামের এক রোগী পুরুষ ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে তাকে সর্বোচ্চ চিকিৎসা সেবা দেয়া হচ্ছে। তিনি আরও বলেন, ডেঙ্গু থেকে বাঁচতে সর্ব প্রথম নিজেকে মশার কামড়ের হাত থেকে রক্ষা করতে হবে। মশার বংশ বিস্তার রোধে বাড়ির আঙ্গিনা, ড্রেন, নালা-ডোবাসিহ সকল প্রকার জায়গা পরিস্কার পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যাতে পানি জমতে না পারে। এছাড়া নারকেল ও ডাবের খোলস বাইরে থাকলেও পানি জমতে পারে। তাই নারকেল ও ডাবের খোলসের সঠিক ব্যবহার করতে হবে। এছাড়া জ্বর হয়ে কারও যদি রক্ত চাপ কমে যায়, শরীর, মাথা ব্যাথা ও বমি হয় তাহলে সাথে সাথে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার অনুরোধ করেন জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের শীর্ষ এ কর্মকর্তা।