বাগেরহাটে ডাকাতি মামলার আসামী আটক, লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার

বাগেরহাটের যাত্রাপুরে পরপর দুই বাড়িতে ডাকাতি মামলায় জড়িত তিনজনকে আটক ও লুন্ঠিত মালামাল উদ্ধার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। পিবিআই বাগেরহাটের একটি দল চট্টগ্রাম মহানগরের আগ্রাবাদ, সরাইপাড়া পাহারতলী এলাকায় অভিযান চালিয়ে এদের আটক করে। আটককৃতরা হলেন, বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর শশ্বানঘাট এলাকার মিন্টু খানের ছেলে মুন্না খান (১৯), মোরেলগঞ্জ উপজেলার পঞ্চকরণ গ্রামের মোঃ সেলিমের ছেলে মোঃ সাব্বির (১৮) এবং নোয়াখালি জেলার সেনবাগ উপজেলার সামারঘাতন গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে আতিকুর রহমান কিরণ (২৫)। এদের কাছ থেকে লুন্ঠিত মটরসাইকেল, ল্যাপটপ, ও একটি মোবাইল ফোন উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতদের বাগেরহাট পিবিআই কার্যালয়ে রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। সোমবার (২৯জুলাই) বিকেলে পিবিআই বাগেরহাট কার্যালয় থেকে এসব তথ্য জানানো হয়।
পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন এর পরিদর্শক মোঃ শহিদুল ইসলাম বলেন, বাগেরহাট সদর উপজেলার যাত্রাপুর গ্রামের দুটি ডাকাতির ঘটনার সাথে জড়িত তিনজনকে রবিবার (২৮ জুলাই) চট্টগ্রামের বিভিন্ন এলাকা থেকে আটক করা হয়েছে। আটককৃতদের কাছ থেকে লুন্ঠিত মালামালও উদ্ধার করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আটককৃতদের আদালতে সোপর্দ করা হবে।
উল্লেখ, সদর উপজেলার আফরা গ্রামের সরদার আবুল কাশেমের ছেলে এসএম জাহিদুল কবির ২৭ জুন এবং ২৯ জুন যাত্রাপুর গ্রামের নুর মোহাম্মাদের ছেলে শেখ আল মামুন বাগেরহাট সদর থানায় পৃথক দুটি ডাকাতির মামলা করেন। মামলায় উল্লেখ করা হয় দূর্বৃত্তরা এসএম জাহিদুল কবিরের বাড়ি থেকে ৩টি মোবাইল ফোন ও ৬০ হাজার টাকা এবং শেখ আল মামুনের বাড়ি থেকে একটি মটর সাইকেল, ল্যাপটপ ও একটি মোবাইল ফোন লুন্ঠন করে নেয়।