চিতলমারীতে চার ভাই ৩‘শ পরিবারকে দিল খাদ্য সামগ্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক. করোনা ভাইরাসের কারণে সারাদেশে মানুষের স্বাভাবিক চলাচলে এক ধরনের নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সরকার। হতদরিদ্র নিম্ন আয়ের মানুষেরাও কর্মের সন্ধানে বাড়ি থেকে বের হতে পারছেন না। যার ফলে খেটে খাওয়া মানুষগুলো এক ধরণের বিপাকে পড়েছে। না খেয়েও থাকার অবস্থাও সৃষ্টি হয়েছে অনেকের। দেশের এই পরিস্থিতে সরকার, স্থানীয় সরকার ও জন প্রতিনিধিরা দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষকে খাদ্য সহযোগিতা দিচ্ছেন। ব্যক্তিগত উদ্যোগেও মানুষের পাশে দাড়াচ্ছেন অনেকে। তেমনই এক ব্যতিক্রম উদ্যোগ নিয়েছেন বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার আড়ুয়াবর্নি গ্রামের চরমধ্যপাড়া এলাকার চার ভাই। মোঃ তৈয়াবুর রহমান খান, নাসির উদ্দিন খান, মোঃ নাজমুল খান ও রবিউল ইসলাম খান নামের এই চার ভাই তাদের নিজস্ব অর্থায়নে আড়ুয়াবুর্নি গ্রামের ৩‘শ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা প্রদান করেছেন। শুক্রবার (০৩ এপ্রিল) সকালে তারা বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে এই খাবার বিতরণ করেন। এসময় অতিথি হিসেবে চিতলমারী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মারুফুল আলম ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ বাবুল হোসেন খান উপস্থিত ছিলেন।
নাসির উদ্দিন খান বলেন, আমরা দুই ভাই চাকুরী করি। দুই ভাই ব্যবসা করে। আল্লাহ আর্থিকভাবে স্বচ্ছল রেখেছেন। বর্তমান করোনা পরিস্থিতিতে অনেকে ঘর থেকে বের হচ্ছে না। কর্মহীন হয়ে পড়েছে অনেকে। তাদের কথা চিন্তা করে আমরা ভাইয়েরা ওই সকল পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়ার উদ্যোগ নেই। শুক্রবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত আড়ুয়াবর্নি গ্রামের ৩‘শ পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করেছি। প্রত্যেকটি পরিবারকে আমরা ৫ কেজি চাল, ১ কেজি পিয়াজ, ১ কেজি ডাল ও ৩ কেজি আলু পৌঁছে দিয়েছি।