বাগেরহাটে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে ৬ জন আইসোলেশনে

নিজস্ব প্রতিবেদক.করোনা ভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে ঢাকা থেকে আসা দুই পরিবারের ৬জনকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি করা হয়েছে। শনিবার (১১ এপ্রিল) সকালে সদর উপজেলার কোদলা গ্রাম থেকে এ্যাম্বুলেন্স যোগে তাদেরকে সদর হাসপাতালে আনা হয়। এদের মধ্যে তিনজন পুরুষ, দুইজন নারী ও ৫ বছর বয়সী এক শিশু রয়েছে। গতরাতে ঢাকা থেকে এ্যাম্বুলেন্সযোগে বাগেরহাটের নিজ বাড়িতে আসেন তারা। এলাকাবাসী তাদেরকে বাড়িতে ঢুকতে না দেওয়ায়, রাস্তায় অবস্থান করেন তারা। মুঠোফোনে খবর পেয়ে সদর হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদেরকে এ্যাম্বুলেন্সে করে সদর হাসপাতালে নিয়ে আসেন।

এদের মধ্যে একজনের জন্ডিস রয়েছে। বাকিদের করোনা বিষয়ক তেমন কোন উপসর্গ নেই। তারপরও অতিরিক্ত সতর্কতা অবলম্বনের জন্য আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।

এদিকে বিভিন্ন উপজেলা থেকেও কয়েক জনের নমুনা সংগ্রহ করেছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) ফকিরহাট উপজেলার থেকে নমুনা সংগ্রহ করা তিনজনের শরীরে কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি মেলেনি বলে জানিয়েছেন ফকিরহাট উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ অসীম কুমার সমাদ্দার।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির বলেন, মুঠোফোনে খবর পেয়ে সদর উপজেলার একটি গ্রাম থেকে ৬জনকে আমরা হাসপাতালে এনেছি। তাদের মধ্যে একজনের জন্ডিস রয়েছে। তাদের নমুনা সংগ্রহ করে খুলণা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো প্রক্রিয়া চলছে। এছাড়াও জেলার বিভিন্ন উপজেলা থেকে কয়েকজনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। তাদের নমুনা আমরা খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠাবো। রিপোর্ট পেলে কোভিড-১৯ সংক্রমনের বিষয়ে জানা যাবে।

তিনি আরও বলেন, এ পর্যন্ত বাগেরহাটের ২০ জনের নমুনার পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। এদের কারও শরীরে কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি পাওয়া যায়নি বলে জানান জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের এই শীর্ষ কর্মকর্তা।