করমজলে বাটাগুর বাসকা ৩৪টি বাচ্চা দিয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক. পূর্ব সুন্দরবনের চাঁদপাই রেঞ্জের করমজল বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে বিলুপ্ত প্রজাতির কচ্ছপ ‘বাটাগুর বাসকা’-র ৩৪টি বাচ্চা ফুটেছে। বুধবার (১৩ মে) সকালে এ বাচ্চাগুলো ডিম থেকে ফুটে বের হয়েছে।ডিম থেকে বের হওয়া বাচ্চা গুলোকে কচ্ছপের জন্য তৈরি “হ্যাচিং প্যানে” রাখা হয়েছে। ৬ মাস পরে অন্য জায়গায় হস্তান্তর করা হবে বলে জানিয়েছেন সুন্দরবনের করমজল কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির।
১০ মার্চ একটি কচ্ছপের দেওয়া ৩৫টি ডিমে ৩৪টি বাচ্চা ফুটলো।এর আগেও এই বন্যপ্রাণী প্রজনন কেন্দ্রে পাঁচবার বাটাগুর বাচ্চা ফুটেছে। হয। ২০১৭ সালে দুটি কচ্ছপের ৬৩টি টি ডিম থেকে ৫৭ টি বাচ্চা হয়। ২০১৮ সালে দুটি কচ্ছপের ৪৬ ডিম থেকে ২১ টি বাচ্চা পাওয়া যায়। সর্বশেষ ২০১৯ সালে একটি কচ্ছপের ৩২ টি ডিম থেকে ৩২ টি বাচ্চা পাওয়া যায়।
সুন্দরবনের করমজল কৃত্রিম প্রজনন কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আজাদ কবির বলেন, গেল ১০ মার্চ একটি কচ্ছপ ৩৫টি ডিম পাড়ে। আমরা যথাযথ নিয়মে ডিমগুলোকে প্রাকৃতিক ইনকিউবেটরে রাখি। সেখান থেকে আজ ৩৪টি বাচ্চা ফুটে বের হয়েছে। বাচ্চাগুলোকে “হ্যাচিং প্যানে” রাখা হয়েছে। এখানে ছানাগুলোকে পর্যাপ্ত খাদ্য ও যতœ করা হবে। ৬ মাস পরে অন্য খাচায় নেওয়া হবে এদেরবকে। এছাড়া ২৭ মার্চ আরও একটি কচ্ছপ ২১টি ডিম দেয়। আশা করছি ওই ডিমগুলো থেকে ২৭ বা ২৮ মে বাচ্চা পাওয়া যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।