সবার জন্য স্বাস্থসেবা নিশ্চিতের দাবীতে মোংলায় মানববন্ধন

মোংলা থেকে মোঃ নূর আলমঃ সৌদিতে জি-২০ দেশ সমুহের অর্থমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংকের গভর্ণরদের বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস কোভিড-১৯ মোকাবেলায় প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণার সিদ্ধান্তমূলক বৈঠককে কেন্দ্র করে মোংলায় বিভিন্ন দাবীতে প্লাকার্ড-ব্যানার হাতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছে কয়েকটি পরিবেশবাদী সংগঠন। শনিবার সকালে মোংলার সুন্দরবন সংলগ্ন চিলা এলাকার পশুর নদীর পাড়ে বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন ( বাপা ), পশুর রিভার ওয়াটারকিপার এবং ওয়াটারকিপার বাংলাদেশ’র আয়োজনে এ মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।
মানববন্ধন চলাকালে পরিবেশ কর্মীরা ”সবার জন্য স্বাস্থ্য সেবা”, ”আমার টাকা আমার ভবিষ্যৎ”, ”স্টপ কোল, স্টপ নিউক্লিয়ার”, ”জাস্ট রিকভারি”, ”পশুর নদী বাঁচাও, সুন্দরবন বাঁচাও”, ”জলবায়ুর উষ্ণতা থেকে বাঁচতে চাই”সহ বিভিন্ন শ্লোগান লেখা প্লাকার্ড-ব্যানার হাতে নিয়ে মানববন্ধন করেন। মানববন্ধন চলাকালে সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ পরিবেশ আন্দোলন ( বাপা ) বাগেরহাট জেলার আহ্বায়ক মোঃ নূর আলম শেখ, এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাপা নেতা গীতা হালদার, নাজমুল হক, মনির হোসেন, পশুর রিভার ওয়াটারকিপার ভলান্টিয়ার আব্দুর রশিদ হাওলাদার, কমলা সরকার, মাহারুফ বিল্লাহ প্রমূখ। সমাবেশে বক্তারা বলেন ইন্টারন্যাশনাল ইনষ্টিটিউট ফর সাসটেইনেবল ডেভেলপমেন্ট’র (আইআইএসডি) গবেষণায় বলছে মহামারিকালে জীবাস্ম জ্বালানী এবং অন্যান্য দূষণকারী শিল্পের জন্য ১৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। বক্তারা বলেন জি-২০ দেশের বৈঠকে করোনাকালের প্রণোদনা দেয়ার জন্য ৭৫০ বিলিয়ন ইউরো এবং শত শত কোটি মার্কিন ডলার পাবলিক মানি অনুমোদনের অপেক্ষায় আছে। এসব অর্থ বরাদ্ধ অন্তত একদশক জুড়ে বিশ্ববাসীকে নানা ভাবে প্রভাবিত করবে। তাই বক্তারা অর্থ বরাদ্দ দেয়ার ক্ষেত্রে গ্রীণ রিকভারি, গ্রীণ জব্স এবং সবার জন্য স্বাস্থসেবা নিশ্চিত করতে জি-২০ সমুহের প্রতি আহ্বান জানান। এছাড়া বক্তারা পশুর নদী এবং সুন্দরবন রক্ষাসহ মানুষ এবং পৃথিবীনামক গ্রহ রক্ষায় ফসিল ফুয়েল ব্যবহারের বন্ধের দাবী জানান।