সাহেদ করিমকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি পেয়েছে দুদক

অবৈধ সম্পদসহ বিভিন্ন অভিযোগের বিষয়ে রিজেন্ট হাসপাতালের চেয়ারম্যান মো. সাহেদ ওরফে মো. সাহেদ করিমকে জেলগেটে জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি পেয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদুক)। বুধবার (১২ আগস্ট) ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ কে এম ইমরুল কায়েশ এ অনুমতি দিয়েছেন। দুদক পরিচালক শেখ মো. ফানাফিল্লাহ জিজ্ঞাসাবাদের অনুমতি চেয়ে এ আবেদন করেন। এ সম্পর্কে দুদক প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, রিজেন্ট হাসপাতালের মালিক মো. সাহেদ ওরফে মো. সাহেদ করিমের বিরুদ্ধে তার ব্যক্তিগত সম্পদ, আয়কর ফাঁকি, ভুয়া পরিচয়ে ঋণ নেওয়া ও করোনার পরীক্ষার ভুয়া রিপোর্ট সরবরাহসহ যেসব বিষয়ে অভিযোগ উঠেছে, সে সম্পর্কে দুদকে একটি অনুসন্ধানী টিম পরিচালক ফানাফিল্লাহর নেতৃত্বে কাজ করছে। সাহেদ করিম এখন যেহেতু অন্য মামলায় কারাগারে রয়েছেন, তাই তারা সেসব বিষয়ে তাকে কারাফটকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অনুমতি চেয়েছিলেন। আদালত তা মঞ্জুর করেছেন। গত ১৫ জুলাই ভোরে সাতক্ষীরার দেবহাটা সীমান্ত থেকে গ্রেপ্তার করা হয় সাহেদকে। পরদিন প্রতারণার মামলায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরপর ২৬ জুলাই পৃথক চার মামলায় তার আরও ২৮ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। ওই দিন সাতক্ষীরার আদালতও অস্ত্র মামলায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরপর গত ১০ আগস্ট দুদকের দায়ের করা অর্থ আত্মসাতের মামলায় সাহেদের ৭ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। এরইমধ্যে গত ৩০ জুলাই অস্ত্র মামলায় সাহেদের বিরুদ্ধে চার্জশিট দাখিল করা হয়েছে।