মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়রের অপসারণ ও নির্বাচনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের মোংলা পোর্ট পৌরসভার নির্বাচন, বর্তমান মেয়র জুলফিকার আলীর অপসারণ ও প্রশাসক নিয়োগের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।মঙ্গলবার (০১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বাগেরহাট প্রেসক্লাবে মোংলা পৌরসভার বাসিন্দা মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ইস্রাফিল ইজারাদার এ সংবাদ সম্মেলন করেন।

লিখিত বক্তব্যে মোঃ ইস্রাফিল ইজারাদার বলেন, ২০১১ সালের নির্বাচনে জুলফিকার আলী মোংলা পোর্টের মেয়র নির্বাচিত হন। তার মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ হওয়ার কিছু দিন আগে ভুয়া সীমানা জটিলতা দেখিয়ে মেয়র সমর্থিত সুবিধাভোগী লোক দিয়ে মামলা করে পৌরসভার নির্বাচন বন্ধ করে রাখেন।জুলফিকার আলীর মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার পর স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় নির্বাচন কমিশনকে নির্বাচন করার জন্য চিঠি দিয়েছেন।  সীমানা জটিলতাসহ অন্যান্য বিষয়ের উপর সকল মামলা উচ্চ আদালত থেকে খারিজ হলেও নির্বাচনের কোন উদ্যোগ নেয়নি কমিশন।পৌরসভার উন্নয়নের স্বার্থে অতিদ্রুত পৌরসভার বর্তমান মেয়কে অপসারণ ও প্রশাসক নিয়োগ করে নির্বাচন দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি।

মোঃ ইস্রাফিল ইজারাদার আরও বলেন, মোংলা পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জুলফিকার আলী প্রথম শ্রেণির মোংলা পোর্ট পৌরসভার মেয়র হওয়ার পর থেকে জনগণকে কুক্ষিগত করে ভোটের অধিকার থেকে বঞ্চিত করেছেন। আমরা জনগণের ভোটের অধিকার চাই।

এদিকে বর্তমান মেয়র জুলফিকার আলী বলেন, আমি নির্বাচনে বিশ্বাসী। নির্বাচন করেই জনগণের রায়ের জনপ্রতিনিধি হয়েছি। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতে মোঃ ইস্রাফিল ইজারাদারসহ স্থানীয় কিছু রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা হয়রানি মূলক মামলা ও একের পর এক মিথ্যে অভিযোগ দিয়ে অপপ্রচার চালাচ্ছেন।নির্বাচন কমিশন যেকোন সময় নির্বাচন দিলে আমি নির্বাচনে অংশ গ্রহন করব।মোঃ ইস্রাফিল ইজারাদারের সকল অভিযোগ ভিত্তিহীন ও মিথ্যা বলে দাবি করেন তিনি।