বাগেরহাটে মাদ্রাসা ছাত্র হত্যা: শিক্ষক ও বাবুর্চিকে কারাগারে প্রেরণ

নিজস্ব প্রতিবেদক. বাগেরহাটের মোরেলগঞ্জে মাদরাসা শিক্ষার্থী হাসিবুল ইসলাম (১০) হত্যায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার শিক্ষক হাফিজুর রহমান ফারুক ও বাবুর্চি সিদ্দিকুর রহমান হাওলাদারকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দিয়েছেন আদালত।]

মঙ্গলবার দুপুরে মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশ তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করলে বাগেরহাট সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট সমির মল্লিক এই আদেশ দেন।একই সাথে পুলিশে করা সাত দিনের রিমান্ড আবেদনের শুনানীর জন্য বুধবার তারিখ ধা্র্য্য করেছেন আদালত। এর আগে সোমবার (০৭ ডিসম্বের) দুপুরে ওই দুইজনকে গ্রেফতার করে মোরেলগঞ্জ থানা পুলিশ।

মোরেলগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মনিরুল ইসলাম বলেন, শিশু হাসিবুল হত্যাকান্ডে জিড়িত থাকার সন্দেহে আমরা ওই মাদরাসার শিক্ষক হাফিজুর রহমান ফারুক ও বাবুর্চী সিদ্দিকুর রহমান হাওলাদারকে গ্রেফতার করেছি। আমরা তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করলে বিচারক তাদেরকে কারাগারে প্রেরণের আদেশ দেন। আমরা আসামীদের সাত দিনের রিমান্ড চেয়েছিলাম, আদালত বুধবার রিমান্ডের শুনানীর দিন ধার্য্য করেছেন।

উল্লেখ্য, ৬ ডিসেম্বর রবিবার সকালে মোরেলগঞ্জ উপজেলা সদরের নব্বইরশি বাসস্টান্ড সংলগ্ন আলহাজ্ব রহমতিয়া স্মৃতি শিশু সনদ হাফেজি ও কওমী মাদরাসার পাশে পরিত্যক্ত জায়গা থেকে হাসিবুলের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। রাতে নিহত শিশু হাসিবুলের মা তাসলিমা বেগম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে মোরেলগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।