ঘূর্ণিঝড় ইয়াসঃ নিরাপদে সুন্দরবনের ঝুকিপূর্ণ ৮ টহল ফাড়ির অর্ধশত কর্মী

ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের কারনে বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের ঝুকিপূর্ণ ৮টি টহলফাঁড়ির
অর্ধশতাধিক কর্মীকে পার্শ্ববর্তী নিরাপদ ফাড়িরতে যেতে বলা হয়েছে। বনরক্ষীদের পাশাপাশি
সুন্দরবনে অবস্থান করা জেলে, বাওয়ালি ও মৌয়ালদের নিরাপদে অবস্থান নিয়েছে। নিরাপদ স্থানে
যেতে বলা টহল ফাড়িগুলো হচ্ছে, সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের বন্ধ ফাঁড়িগুলো
হলো দুবলা, ককিলমুনি, শ্যালা, কচিখালী ও চড়খালী এবং চাঁদপাই রেঞ্জের মধ্যে রয়েছে
তাম্বুলবুনিয়া, জোংড়া ও ঝাপসি টহলফাঁড়ি বন অফিস। এসব অফিসের কর্মকর্তা ও বনরক্ষীরা
নিরাপদ ফারিতে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছেন।
সতর্ক সংকেত বৃদ্ধির সাথে সাথে তারা অস্ত্র ও প্রয়োজনীয় মালামাল নিয়ে ঝুকিমু্ক্ত ফাড়িতে
যাবেন বলে জানিয়েছেন সুন্দরবন পূর্ব বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা (ডিএফও) মুহাম্মদ
বেলায়েত হোসেন। তিনি বলেন, বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট ঘূর্ণিঝড় ইয়াস আগামী ২৬ মে বাংলাদেশের
উপকূলীয় এলাকায় আঘাত হানতে পারে। বিষয়টি মাথায় রেখেই বাগেরহাটের পূর্ব সুন্দরবন
বিভাগের শরণখোলা ও চাঁদপাই রেঞ্জের ঝুঁকিপূর্ণ ৮ টহল ফাঁড়ির কর্মীদের নিরাপদ স্থানে যেতে
বলা হয়েছে। এসব টহল ফাড়ির পার্শ্ববর্তী ফাড়ির কর্মী ওইসব ফাড়ি এলাকার প্রতি নজরদারি
রাখবেন।