বাগেরহাটে ‘‘হট লাইনে ফোন করি, নমুনা সংগ্রহকারী যাবে আপনার বাড়ি” সেবা শুরু

নিজস্ব প্রতিবেদক. “হট লাইনে ফোন করি, নমুনা সংগ্রহকারী যাবে আপনার বাড়ি” এই স্লোগান নিয়ে বাগেরহাটে করেোনা পরীক্ষার জন্য ভ্রাম্যমান নমুনা সংগ্রহ শুরু হয়েছে। সাম্প্রতি বাগেরহাট জেলায় করোনা সংক্রমনের পরিমান বৃদ্ধি পাওয়ায় বাগেরহাট-২ (কচুয়া-সদর)আসনের সংসদ সদস্য শেখ তন্ময় এই উদ্যোগ নিয়েছেন।মঙ্গলবার (১৫ জুন) সকাল ১০টায় বাগেরহাট সদর হাসপাতালের সামনে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ আজিজুর রহমান।

এসময় বাগেরহাটের পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক, সিভিল সার্জন ডা. কেএম হুমায়ুন কবির, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. ভুইয়া হেমায়েত উদ্দিন, বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দিন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মাদ মোছাব্বেরুল ইসলাম, ডা. মোঃ শাহ নেওয়াজ, বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মিরাজুল করিম, বাগেরহাট সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আক্তারুজ্জামান বাচ্চু, মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কেএম আজিজুল ইসলামসহ চিকিকৎসক ও স্বাস্থ্যকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ার এই সময়ে সংসদ সদস্যের এমন উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জনপ্রতিনিধি ও সাধারণ মানুষ। ভ্রাম্যমাণ টিমের কাছে প্রথম নমুনা দেন শহরের বনিক পট্টি এলাকার লিটন সরকার। তিনি বলেন, গত চারদিন ধরে নানা উপসর্গ নিয়ে বাসায় আছি। হাসপাতালে যেতে পারছিলাম না। আজ হাসপাতাল থেকে এসে আমার নমুনা সংগ্রহ করে নিয়েছে। আমি তাদের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন বাগেরহাটের সাধারণ সম্পাদক ডাঃ মোশারফ হোসেন বলেন, আমাদের বিভিন্ন উপজেলায় এই নমুনা সংগ্রহের বিষয়টি যদি অবহিত করতে পারি এবং নমুনা সংগ্রহ করে রোগীর সঠিক অবস্থা বুঝতে পারবো এবং চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে পারবো। এই উদ্যেগ করোনা সংক্রমণ রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

বাগেরহাট সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান সরদার নাসির উদ্দীন বলেন, করোনাকালীন শুরু থেকেই বাগেরহাট ২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য শেখ তন্ময় বাগেরহাটবাসীর জন্য বিভিন্ন উদ্যেগ নিয়েছেন। সেই ধারাবাহিকতায় আজ বাগেরহাটের মানুষের জন্য হট লাইনে ফোন করি, নমুনা সংগ্রহকারী যাবে আপনার বাড়ি, নামের নতুন একটি স্বাস্থ্য সেবা চালু করেছেন। বাগেরহাট সদর, কচুয়া, মোংলা-রামপাল, ও শরণখোলা-মোড়েলগঞ্জ এলাকায় তিনটি ভ্রাম্যমাণ নমুনা সংগ্রহকারী দল কাজ শুরু করেছে। আমরা এই উদ্যেগের কারনে মাননীয় সংসদ সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির বলেন, ভ্রাম্যমান তিনটি গাড়ি বাগেরহাট সদর, কচুয়া, রামপাল, মোংলা, মোরেলগঞ্জ ও শরণখোলা উপজেলায় ঘুরে ঘুরে নমুনা সংগ্রহ ও র্যা পিড অ্যান্টিজেনের মাধ্যমে পরীক্ষা করবে।প্রতিদিন ৩‘শ মানুষকে পরীক্ষা করার সক্ষমতা রয়েছে এই টিমের।এছাড়াও প্রত্যেকটি গাড়িতে হটলাইন নাম্বার রয়েছে। যে নাম্বারে ফোন দিলে নমুনা সংগ্রহকারী উপসর্গ থাকা রোগীর বাড়িতে পৌছে যাবে। নমুনা সংগ্র্রহ করে পরীক্ষার রিপোর্ট তাকে জানিয়ে দিবে।হটলাইন নাম্বার গুলো হচ্ছে-০১৯২০-৯২২২২৯ ও ০১৪০০-৩০৫৪০৫।

পুলিশ সুপার কেএম আরিফুল হক বলেন, আইন দিয়ে সব কাজ সম্ভব নয় , তাই করোনাকালীন সময়ে মানুষকে সচেতন করাটাই মূখ্য। আমাদের পুলিশ বাহিনীর সদস্যরা সব সময় করোনা সংক্রমন রোধে জনসাধারনকে সচেতন করে আসছে।

বাগেরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ভূইয়া হেমায়েত উদ্দীন বলেন, আমাদের সংগঠনের সকল নেতৃবৃন্দের প্রতি নির্দেশনা দেওয়া রয়েছে করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সতর্ক থাকার। এই ভ্রাম্যমাণ টিম যেখানেই যাবে আমাদের নেতা-কর্মীরা তাদের সর্বোচ্চ সহায়তা করবে।

বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মোহাম্মাদ আজিজুর রহমান বলেন, করোনা সংক্রমন বৃদ্ধি পাওয়ায় মানুষ হাসপাতালে উপসর্গ নিয়ে আসতে চায় না। এ কারনে বাড়ি বাড়ি গিয়ে নমুনা সংগ্রহের যে কাজ শুরু হয়েছে তাতে আমি সংসদ সদস্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। পাশাপাশি সকলের সহযোগীতা কামনা করছি।